বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ মার্চ ২০১৯

জাপানিজ আইটি সেক্টরের উপযোগী করে আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প

 

ক্রমিক নং

বিষয়বস্তু

 বিবরণ

প্রকল্পের নাম

জাপানিজ আইটি সেক্টরের উপযোগী করে আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প

মেয়াদ

আগস্ট ২০১৭-এপ্রিল ২০২১

প্রাক্কলিত ব্যয়

অর্থের উৎস

পরিমান

বৈদেশিক সাহায্য (জাইকা)

৩৮৫৭.৬৮  (লক্ষ টাকায়)

জিওবি

   ৬১৭.৩৪  (লক্ষ টাকায়)

মোট

 ৪৪৭৫.০২   (লক্ষ টাকায়)

জনবল

কমকর্তা: ০৩ জন (বর্তমানে রয়েছে ১ জন)

কমচারী: ০৩ জন

পটভূমি

  • জুলাই ২০১৫ তে প্রকাশিত আইএমএফ এর ওয়ার্কিং পেপার (WP/15/181) অনুযায়ী, জাপানের নিজস্ব শ্রমশক্তি আগামী দুই দশকে সঙ্কুচিত হবে। জাপানের নিজস্ব জনশক্তি ২০১০ সালে ৬৩.০ মিলিয়ন থেকে নেতিবাচক ধারায় ২০৩০ সালে ৫৪.৫ মিলিয়নে নেমে আসবে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। জাপানি মার্কেটের জন্য কাজ করতে পারে এমন দক্ষ আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাংলাদেশে প্রচুর আইসিটি পেশাজীবী রয়েছে, প্রতি বছর ৩০০০+ আইসিটি গ্রাজুয়েট বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করছে, যারা জাপানের বাজারে দক্ষ আইসিটি জনবলের অভাব পূরণের সুযোগ গ্রহণ করতে পারে।
  • আইসিটি’র ক্ষেত্রে জাপান হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের বাজারের পরে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম বাজার। তথাপি জাপানি মার্কেটে প্রবেশের প্রতিবন্ধকতা হচ্ছে জাপানিজ ভাষা, জাপানিজ বিজনেস কালচার এবং আইসিটি পেশাজীবীদের প্রফেশনাল সার্টিফিকেশন
  • আইসিটি পেশাজীবীদের প্রফেশনাল সার্টিফিকেশন (ITEE) ব্যবস্থা বাংলাদেশে  চালু করার লক্ষ্যে জাইকার সহায়তায় "ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অন আইটিইই ম্যানেজমেন্ট প্রকল্প" (২০১২-২০১৫) মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হয়। ফলস্বরূপ, আইটিইই সফলভাবে বাংলাদেশে চালু করা হলেও এটি এখনো ব্যাপকভাবে পরিচিত নয় এবং পরীক্ষায় পাশের হার অত্যন্ত কম। এই প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে আইটিইই পরীক্ষার ব্র্যান্ডি ও প্রমোশন কার্যক্রম বৃদ্ধি করা হবে, যাতে বাংলাদেশের সকল আইসিটি গ্রাজুয়েট ও পেশাজীবীদের আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে পরিমাপ করাসহ পরীক্ষায় পাশের হার বৃদ্ধি করা যায়, যা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কর্মসংস্থান, বৈদেশিক মুদ্রা ও বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।
  • এই প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে জাপানে বাংলাদেশী আইসিটি প্রফেশনালদের প্রেরণ করে তাঁদের কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পথ প্রশস্ত হবে। অপরদিকে জাপানি আইসিটি কোম্পানিসমূহ বাংলাদেশের আইসিটি মার্কেটে তাদের বিনিয়োগে আগ্রহী হবে।

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

  • বাংলাদেশের আইসিটি পেশাজীবীদের ব্র্যান্ড ইমেজ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বৃদ্ধি করা;
  • জাপানিজ আইসিটি মার্কেটের কাজের উপযোগী করে দক্ষ আইসিটি জনবল তৈরী করা;
  • আইসিটি পেশাজীবীদের জাপান ও বাংলাদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা;
  • জাপানি আইসিটি মার্কেটের উপযোগী করে আইটি ইঞ্জিনিয়ারদের দক্ষতা উন্নয়নের জন্য আইসিটি ইন্ডাস্ট্রি এর সহযোগিতায় একটি রোল মডেল প্রণয়ন করা;
  • বিশ্ববিদ্যালয়ের  ছাত্রদের ITEE পরীক্ষার কারিকুলাম অনুযায়ী প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা করা;
  • ITPEC (Information Technology Professionals Examination Council) সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ITEE পরীক্ষায় পাসের হার সর্বোচ্চ করার লক্ষ্যে ITEE পরীক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে সহায়তা করা;
  • Information Technology Engineers Examination (ITEE) পরীক্ষার প্রশ্ন প্রণয়ন কমিটির সদস্যদের উচ্চ মানের প্রশ্ন প্রণয়নে সহায়তা প্রদান;
  • ITEE (IT Engineers Examination) সহ আইটি পেশাজীবী ও গ্রাজুয়েটদের দক্ষতা উন্নয়নে সহায়তা প্রকল্প বাস্তবায়নে বিসিসি’র সক্ষমতা বৃদ্ধি করা।

প্রকল্পের উল্লেখ্যযোগ্য কম্পোনেন্ট

  • ৩২০ জনকে জাপানিজ ভাষা, জাপানিজ বিজনেস কালচার ও আইটি এর উপর ৩ (তিন) মাস মেয়াদী Intensive প্রশিক্ষণ প্রদান;
  • ITEE (IT Engineers Examination) পরীক্ষায় পাশের হার বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, আইসিটি পেশাজীবি ও আইটিইই পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের ১২০ ঘন্টা মেয়াদী প্রশিক্ষণ ১০৮০ জনকে প্রদান;
  • ITEE (IT Engineers Examination) পরীক্ষায় পাশের হার বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, আইসিটি পেশাজীবি ও আইটিইই পরীক্ষার পরীক্ষার্থীদের ৭২ ঘন্টা মেয়াদী প্রশিক্ষণ ১৬০০ জনকে প্রদান;
  • ITEE (IT Engineers Examination) পরীক্ষার প্রশিক্ষণ প্রদানের প্রশিক্ষক তৈরীর লক্ষ্যে ২০০ (দুইশত) জনকে TOT প্রশিক্ষণ প্রদান;
  • ITEE (IT Engineers Examination) পরীক্ষা জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে ১৯টি মটিভেশনাল ও প্রমোশনাল সেমিনার/ওয়ার্কশপ/জব ফেয়ার আয়োজন;
  • ITEE (IT Engineers Examination) পরীক্ষার প্রশ্ন প্রণয়ন কমিটির সদস্যদের নিয়ে ঢাকার বাইরে বছরে একবার করে Question Formulation Meeting (QFM) আয়োজন।

বাস্তবায়ন অগ্রগতি

আর্থিক অগ্রগতি: ৫৭% (ফেব্রুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত)

বাস্তব অগ্রগতি: ৬০% (ফেব্রুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত)

প্রশিক্ষণের সংস্থান

স্থানীয়:  ৩২২০ জন

বৈদেশিক: ৩০ জন

১০

কর্মসংস্থান হয়েছে

এ জাপানিজ ভাষা, জাপানিজ বিজনেস কালচার ও আইটি এর উপর ৩ (তিন) মাস মেয়াদী Intensive প্রশিক্ষণ ১২৭ জনকে প্রদান করা হয়েছে এবং ১২৬ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে:

  • জাপানে: ৮৭ জন (ফেব্রুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত)
  • বাংলাদেশে: ২৯ জন (ফেব্রুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত)

 ১১

সেমিনার/কর্মশালা/আয়োজিত  ইভেন্ট ও প্রতিযোগিতা

  • প্রকল্পের আওতায় অন ক্যাম্পাস ক্যাম্পেইন, সেমিনার, সার্টিফিকেট বিতরণ অনুষ্ঠান, প্রশিক্ষণ, মক টেস্ট ও বিভিন্ন ইভেন্ট নিয়মিতভাবে পরিচালনা করা হচ্ছে।

Share with :

Facebook Facebook